দেশে লকডাউন হলে চাকরি খুঁজবেন যে উপায়ে

0
122

করোনা মহামারি শুরু হওয়ার পর থেকে আর্থিক সংকটে পড়েছে অনেক প্রতিষ্ঠান। ব্যাপক আকারে শুরু হয়েছে কর্মী ছাটাই। এমন পরিস্থিতিতে নতুন চাকরি খোঁজাই যেন প্রার্থীর সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে উঠেছে। এরমধ্যেই দেশে শুরু হয়েছে দ্বিতীয় লকডাউন। কিন্তু প্রশ্ন হলও এ লকডাউনের মধ্যে চাকরি খুঁজবেন কিভাবে? সে উপায় বাতলে দিতেই আজকের আয়োজন-

কীভাবে চাকরি পাবো?

বিশেষজ্ঞদের মতে, চাকরির বাজারে যেসব বিষয় দক্ষতা চাওয়া হয়, সেসব বিষয় একজন প্রার্থীর কতটুকু দক্ষতা রয়েছে, সেটা যাচাই করে দেখতে হবে। জীবনবৃত্তান্তে পরিবর্তনের পাশাপাশি সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের ব্র্যান্ডিং করতে হবে। এছাড়াও যেসব কোম্পানিতে নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে ইন্টারনেটে সেগুলো নিয়মিত খুঁজতে হবে। লিংকডইনের মাধ্যমে অনেকেই চাকরি পান। নতুন চাকরি খোঁজার জন্য এখানে একটিভ থাকতে হবে।

নেটওয়ার্ক তৈরি করবো কীভাবে?

করোনার কারণে চাকরি প্রার্থী, শিল্পোদ্যোক্তা, সেলস প্রফেশনাল এবং অন্যদের অনলাইনের মাধ্যমে যোগাযোগ রাখতে হয়। বাধ্য হয়ে অনেকেই অনলাইন সেমিনার, মিটিং বা কোর্সে অংশ নিচ্ছেন। জব নেটওয়ার্কের ক্ষেত্রে অনেক সময় সোশ্যাল মিডিয়ার যোগাযোগ বেশ কাজে লাগে। ফলে সোশ্যাল মিডিয়ায় বন্ধুবান্ধব, সহকর্মীদের নিয়ে চাকরির নেটওয়ার্ক তৈরি করা এখন সময়ের দাবী। বিশেষজ্ঞদের মতে, করোনার নাজুক পরিস্থিতিতেও বাইরের মানুষের সঙ্গে যত কম মেলামেশা করা যায় ততই ভালো। ফলে সরাসরি কথা বলার চেয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রফেশনাল নেটওয়ার্ক গড়ে তোলাই হবে বুদ্ধি মানের কাজ।

ইন্টারভিউয়ের প্রস্তুতি যেভাবে

চাকরির বাজারের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ধাপ হচ্ছে ইন্টারভিউ। বিশেষজ্ঞদের মতে, মহামারির সময়ে ঠাণ্ডা মাথায় চাকরির ইন্টারভিউ দেওয়া উচিত। ভাইভা বোর্ডে যেসব প্রার্থী মাথা ঠাণ্ডা রেখে প্রশ্নের উত্তর দিতে পারবেন, তাদের চাকরি পাওয়ার সম্ভাবনা বহুগুণে বেড়ে যায়। সাম্প্রতিক সময়ে বেশির ভাগ প্রতিষ্ঠান ইন্টারভিউ নিচ্ছে জুম বা গুগল মিটের মাধ্যমে। সঙ্গত কারণেই ভিডিও ইন্টারভিউ দেওয়ার জন্য প্রস্তুতি থাকতে হবে।

`ভার্চুয়াল এটিকেট’ কি ও কেন?

অনেক সময় চ্যাটের মাধ্যমে কারও সঙ্গে দীর্ঘ আলোচনা করা সম্ভব হয় না। সেক্ষেত্রে বিশেষজ্ঞরা ভিডিও কলের মাধ্যমে যোগাযোগ করতে পরামর্শ দেন। বিভিন্ন মেসেজিং অ্যাপের মাধ্যমে সহজেই ভিডিও কল করা যায়। অনেকে মেসেজিং অ্যাপের প্রোফাইলে ‘ডু নট ডিস্টার্ব’ টাইপ করে রাখেন। যাতে কাজের সময় অন্য কেউ ফোন করতে না পারে।

এছাড়াও বিভিন্ন পত্রিকার জব ক্যাটাগরিতে নজর রাখতে পারেন। বিশেষ করে অনলাইন নিউজ পোর্টাল ঢাকা পোস্টের জবস বিভাগে নিয়মিত নজর রাখতে পারেন। তাছাড়া বিডি জবস, জাগো জবস, বিক্রয় জবসসহ বেশ কিছু চাকরিভিত্তিক ওয়েব সাইট রয়েছে, সেখানে সিভি আপলোড করে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। নিয়মিত খোঁজ খবর রাখা ছাড়া মহামারির এই বাজারে নতুন চাকরি পাওয়া কঠিন হয়ে পড়বে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here